28.7 C
New York
Thursday, August 11, 2022

রঙ্গ খোলসা করতে ট্রেলারে হাজির ‘চলচ্চিত্র সার্কাস’ (ভিডিও)

একাধিক ছবি মুক্তি পাচ্ছে পূজায়। কোন ছবি ব্যবসা করবে আর কোন ছবি ব্যবসা করবে না, তা নিয়ে তরজা তুঙ্গে। কিন্তু ছবি হিট করার মন্ত্র জানেন পরিচালক সূর্য। ‘ছবি চালাতে তিনটে জিনিস দরকার- নাটক, প্রেম আর গান’। গল্প যাই হোক না কেন প্রযোজকের কথা অনুযায়ী ছবিতে দরকার আইটেম সং। ছবির হিরো কে হবে, কে হবে ছবির হিরোইন, তাও অনেক সময় ঠিক করে দেন প্রযোজক। সিনেমা কীভাবে তৈরি হয় এই নিয়ে দর্শকদের উৎসাহের শেষ নেই।

কিন্তু আসলে দর্শক জানেনই না ‘বাংলা সিনেমা ও বাংলা মদের মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই’। একটা সিনেমা বানাতে যে সার্কাস হয় তা দর্শকের ‘ধ্যান ধারণার বাইরে’। তাই সবাই গেয়ে ওঠে ‘ভয় হয়, কাদের পাল্লায় ফেললি আমায়’কিংবা কোথাও কোনও খারাপ লাগা থেকে পরিচালক বলে ওঠেন ‘যতবার উড়তে চাই আকাশে, আটকে যাই চলচ্চিত্র সার্কাসে’। সিনেমার এই সার্কাসই এবার দর্শকদের জন্য বড়পর্দায় আনছেন পরিচালক মৈনাক ভৌমিক। আরে উপরে উল্লিখিত সমস্ত কথাই ট্রেলারে বলতে চেয়েছেন পরিচালক।

সোশ্যাল সাইটে লাইভ আড্ডায় বুধবার ছবির ট্রেলার লঞ্চ করলেন পরিচালক-সহ ছবির অভিনেতা-অভিনেত্রীরা ও সংগীত পরিচালক।

ছবিতে পরিচালক সূর্যর চরিত্রে দেখা যাবে ঋত্বিক চক্রবর্তীকে। একটা ছবি বানাতে গিয়ে যে কী কী ধরনের সমস্যায় পড়তে হয় একজন পরিচালককে, ঋত্বিকের মধ্যে দিয়ে যেন নিজের কথাই বলতে চেয়েছন পরিচালক। লাইভ আড্ডায় অবশ্য স্বীকারও করলেন সে কথা। ছবি বানাতে গিয়ে নানা অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছেন তিনি। টেনশন, মজা, খারাপ লাগা সব রয়েছে সেখানে। তবে এ ছবি রিলিজের পর প্রযোজকরা তার উপর বেজায় চটে যেতে পারেন এই আশঙ্কাও রয়েছে তার।

তবে সবটাই বললেন মজার ছলে। কারণ পুরো ব্যাপারটা যদি দর্শক সিরিয়াসলি নিয়ে নেন তাহলে তো সবাই ভেবে বসবেন অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তী আজ অবধি সব চরিত্রই পেয়েছেন কাস্টিং কাউচের মাধ্যমে। হাসতে হাসতে সে কথাই দর্শকদের বোঝালেন সুদীপ্তা। সুদীপ্তা ছাড়া এই ছবিতে রয়েছেন পাওলি দাম, তনুশ্রী চক্রবর্তী, পায়েল সরকার, কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, সুজন মুখোপাধ্যায়, সোনালী চৌধুরী ও রুদ্রনীল ঘোষ। সিনেমার ভিতর যে সিনেমা তৈরি নিয়ে এত সার্কাস, সেই ছবিরই হিরো রুদ্রনীল। ছবিতে অনেকেই মোটামুটি দ্বৈত চরিত্রে। কারণ তাঁরা তো একটা নয় দুটো ছবিতে রয়েছেন। এই যেমন এই ছবির সংগীত পরিচালক অনুপম রায়, সিনেমাতেও সংগীত পরিচালক। সেখানে তিনি আর রায় নন, তিনি অনুপম চাকলাদার।

ট্রেলার থেকেই বোঝা যাচ্ছে ছবির প্রথম থেকে শেষ স্যাটায়ারে মুড়ে ফেলেছেন পরিচালক। বাকি আর কী কী রয়েছে ছবিতে, যার জন্য পরিচালককে নাকি কলকাতা ছেড়ে পালাতে হতে পারে (এটা অবশ্য পরিচালকের দাবি), তা জানতে অপেক্ষা ২২ সেপ্টেম্বর অবধি কারণ ঐদিনই সার্কাসের তাঁবু ফেলবেন পরিচালক মৈনাক ভৌমিক।

Facebook Comments Box

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Latest Articles