15.3 C
New York
Tuesday, October 26, 2021

প্রেমিকার সিঁথিতে রক্ত দিয়ে সিঁদুর দান আহত প্রেমিকের! হার মানবে সিনেমাও

এ যেন সিনেমার চিত্রনাট্যকেও হার মানায়। প্রেমিকার বাবার বেধড়ক মারে হাসপাতালে প্রেমিক। বাড়ি থেকে পালিয়ে হাসপাতালে প্রেমিককে দেখতে ছুটলেন প্রেমিকা। হাসপাতালে নিজের হাত কেটে প্রেমিকার সিঁথিতে ‘রক্ত তিলক’ এঁকে দিলেন আহত প্রেমিক। এ কোনও বাংলা ছবির চিত্রনাট্য নয়, এমন ঘটনার সাক্ষী থাকল বনগাঁ মহকুমা হাসপাতাল।
বেশ কয়েকবছর ধরেই বনগাঁর শক্তিগড় এলাকার বলরাম নাগ(২১) ও শিউলি বিশ্বাস(২০) একে অপরকে ভালবাসেন। বনগাঁ দীনবন্ধু মহাবিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের পড়ুয়া তাঁরা। শিউলির পরিবার মেনে নেয়নি এই সম্পর্ক। দুই পরিবার আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি মেটানোর চেস্টাও করে বহুবার। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি।

সোমবার শিউলির অনুপস্থিতিতে বলরামকে বাড়িতে ডাকেন তাঁর বাবা। শিউলির জীবন থেকে বলরামকে সরে যেতে বলেন পেশায় শিক্ষক প্রদীপ বিশ্বাস। বলরাম জানান,  শিউলিকে সে ভালবাসে। শিউলির জীবন থেকে সরে যাওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই। বলরামের এ হেন উত্তর পাওয়ার পরেই রেগে যান প্রদীপবাবু।

শিউলির কয়েকজন আত্মীয় ও প্রদীপবাবু বলরামকে বেধড়ক মারধর করেন বলে অভিযোগ। মারের চোটে মাথায় আঘাত নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন বলরাম। এদিকে বাড়িতে এসে প্রেমিককে মারধরের খবর জানতে পেরে লুকিয়ে বনগাঁ হাসপাতালে বলরামকে দেখতে ছোটেন শিউলি। সেখানেই শিউলি তাঁর বাবা ও আত্মীয়স্বজনের কৃতকর্মের জন্য বলরামের কাছে ক্ষমা চান। আহত বলরাম কালক্ষেপ না করে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। হাসপাতালের বেডে শুয়ে নিজের হাতের আঙুল কেটে রক্ত দিয়ে সিঁদুর দান করেন প্রেমিক বলরাম। সেই রাতেই তাঁরা হাসপাতাল থেকে ছুটি নিয়ে স্থানীয় মন্দিরে সামাজিক ভাবে বিয়ে করেন।

Facebook Comments Box

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Latest Articles

Facebook Comments Box